Print Print

পৌর নির্বাচনের ফলাফলও সরকার জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মতোই ভোট ডাকাতি করে নিয়ে যাচ্ছে -মির্জা ফখরুল

ষ্টাফ রিপোর্টার,ঠাকুরগাঁও থেকে।-
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, পৌরসভার মতো স্থানীয় সরকারের নির্বাচনগুলোর ফলাফলও এখন সরকার ২০১৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কায়দায় ভোট ডাকাতি করে নিজেদের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। দেশের ৪২ জন বিশিষ্ট নাগরিকের বক্তব্য উদ্ধৃত করে তিনি অভিযোগের সুরে বলেন, এই নির্বাচন কমিশন নির্বাচন পরিচালনায় সম্পূর্ণ অযোগ্য হয়ে পড়েছে,তারা অসাদাচরণ করছে, দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়েছে। তারা ইভিএমকে অকার্যকরি হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, নির্বাচন কমিশন ইভিএম নিয়ে বিশাল ব্যবসা করছে।
বৃহষ্পতিবার দিনাজপুর ও বীরগঞ্জে বিএনপি’র মেয়র প্রার্থীর পক্ষে পৌর নির্বাচনী সমাবেশ শেষে ঠাকুরগাঁও শহরের ফকিরপাড়াস্থ নিজ বাড়িতে ফিরে শুক্রবার(১৫ জানুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টায় নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় এসব মন্তব্য করেন তিনি।
তিনি ক্ষমাতসীনদের শাসন ব্যবস্থাকে ‘হাইব্রিড রেজিম’ হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, গণতান্ত্রিক ছদ্মবেশে এই সরকার নিজেদের একদলীয় শাসন ব্যবস্থা পাকাপোক্ত করার জন্য দেশের সকল গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানকে ধ্বংস করেছে। তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটাল দখলের পরবর্তি পরিস্থিতি বর্ণনা করে উদাহরণ হিসেবে বলেন, প্রতিষ্ঠান টিকে থাকলে গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা কেউ ধ্বংস করতে পারেনা। কিন্তু বর্তমান সরকার রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে ন্যাক্কারজনকভাবে সে কাজটিই করেছে। তিনি ভয়ংকর আত্মহননের পথ থেকে সরে আসার আহবান জানিয়ে বলেন, পৃথিবীর দৃষ্টান্ত থেকে শিক্ষা গ্রহণ করে নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু করার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান।
বিএনপি মহাসচিব দেশে প্রাইভেট সেক্টরের মাধ্যমে ৩০ লক্ষ করোনা ভ্যাকসিন আনার সমালোচনা করে বলেন, এটা মেগা লুটপাট ও মুনাফার জন্য করা হচ্ছে। এই সরকার আর জনগণের জন্য ভাবেনা, তারা নিজেরা কিভাবে ধনী হবে অর্থ পাচার করবে সেটাই ভাবে। ভ্যাকসিন দ্বিগুন দাম দিয়ে মধসত্বভোগী বেক্সিমকোর মাধ্যমে আনার সমালোচনা করে বলেন, ব্যাক্সিমকো সরকারেরই একটি প্রতিষ্ঠান।
আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বিএনপি’র প্রতি সমালোচনা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমি কি বলবো, তার ভাই যিনি আওয়ামী লীগ নেতা মির্জা কাদের সাহেব, তিনিই ভালোভাবে বলেছেন যে ক্ষমতাসীন দল কি কি অপকর্ম করছে। তিনি সে পথ থেকে সরে এসে গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা ফিরিয়ে আনতে সরকারকে অবিলম্বে পদত্যাগ করে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের মাধ্যমে ব্যালট ব্যবস্থায় অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনের জোর দাবী জানান। তিনি হুঁসিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন , তা নাহলে তাদের পতন জনসাধারণই ঘটাবে।
তিনি নববর্ষে , একটি সুখী সমৃদ্ধ গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার আন্দোলনের স্বপ্নপূরণে সবাইকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।
এসময় জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মির্জা ফয়সাল আমিন, ঠাকুরগাঁও পৌরসভার বিএনপি মেয়র প্রার্থী শরীফ হোসেন ও পঞ্চগড় পৌরসভার সাবেক মেয়র তহিদুল ইসলামসহ জেলা ও উপজেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন। মির্জা ফখরুল মতবিনিময় সভার পরেই ঢাকার উদ্দেশ্যে সৈয়দপুর বিমান বন্দরের পথে ঠাকুরগাঁও ত্যাগ করেন।

ADs by sundarban PVC sundarban PVC Ads

ADs by Korotoa PVC Korotoa PVC Ads
ADs by Bank Asia Bank 

Asia Ads

নিচে মন্তব্য করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *