Print Print

এক অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন ঠাকুরগাঁও-২ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ দবিরুল ইসলাম

আজম রেহমান,সারাদিন ডেস্ক:: দলীয় আনুগত্যের এক অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন ঠাকুরগাঁও-২ আসনের সংসদ সদস্য ও ঠাকুরগাঁও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ দবিরুল ইসলাম ।   তাঁর এই দৃষ্টান্ত বাংলাদেশের রাজনীতিতে একটি উদাহরণ হয়ে থাকবে ।

২৯ মার্চ ।  ঠাকুরগাঁও জেলা আওয়ামীলীগের আয়োজনে জনসভা। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি শেখ হাসিনা । সেই জনসভায় সভাপতিত্ব করতে হবে । স্বাগত জানাতে হবে দলীয় প্রধানকে ।  উপস্থিত না থাকলে জনসভাতেও বড় প্রভাব পড়তে পারে । এসব ভেবেই প্রিয়তমা স্ত্রীর দাফন পিছিয়ে দিলেন।

নির্ধারিত সময়ে হাজার হাজার নেতাকর্মীদের নিয়ে উপস্থিত থেকে বিকেল সাড়ে পাঁচটা পর্যন্ত জনসভায় উপস্থিত ছিলেন  এই বর্ষিয়ান নেতা ।

২৮ মার্চ রাত এগারোটার দিকে অসুস্থতাজনিত কারণে পার্থিব জগতের মায়া ছেড়ে পরপারে চলে যান এমপি দবিরুল ইসলামের স্ত্রী মোমেনা খাতুন । খবর পেয়ে দলীয় নেতা কর্মিরাসহ সাধারণ মানুষজন বাড়িতে ভীর জমান। সমবেদনা জানাতে ছুটে যান  আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সহকারি সাইফুজ্জামান শেখর ।  জানতে চান জনসভায় উপস্থিত থাকবেন কি না । বরাবরই দলীয় কার্যক্রমকে প্রাধান্য দিয়ে এসেছেন যেই নেতা এবারও তাই করলেন । সবাইকে অবাক করে  জানিয়ে দেন তিনি উপস্থিত থাকবেন ।  শুধু তাই নয় দাফনও পিছিয়ে পরদিন করা হবে বলে সিদ্ধান্ত নেন।

শুধু সাংসদ একাই নন তাঁর দুই ছেলে জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম সুজন  ও বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মমিরুল ইসলাম সুমনও মায়ের লাশ বাসায় রেখে জনসভা সফল করতে কাজ করেছেন ।

এ বিষয়ে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা পরিষদ সদস্য হুমায়ুন কবির এমপি সাহেব যা করেছেন এটা বাংলাদেশের রাজনীতিতে একটি দৃষ্টান্ত । নিজ দল এবং প্রধানমন্ত্রীর প্রতি ভালবাসার যে বহিঃপ্রকাশ  তিনি দেখিয়েছেন সেটা আমাদেরকে অবাক করেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে দবিরুল ইসলামের ছোটভাই ও বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী   বলেন, ‘এমপি সাহেব পরিবারের লোকজনের চাইতে দল ও দলীয় লোকজন এবং কর্মসূচিকে বেশি প্রাধান্য দিয়ে থাকেন। তাই নেত্রীর  জনসভার সাফল্যকেই তিনি গুরুত্ব দিয়েছেন ।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি বিদেশ থেকে চিকিৎসা শেষ করে দেশে ফেরেন  এমপি দবিরুল ইসলাম । বিদেশে থাকাকালীন তাঁর অনুপস্থিতির সুযোগে গ্রামের বাড়িতে দুঃসাহসিক ডাকাতি সংগঠিত হয় ।

ADs by sundarban PVC sundarban PVC Ads

ADs by Korotoa PVC Korotoa PVC Ads
ADs by Bank Asia Bank 

Asia Ads

নিচে মন্তব্য করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *