ঢাকা ০৫:২৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
পীরগঞ্জে মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় কিশোরের মৃত্যু জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি সহ ৫ নেতার পীরগঞ্জে সংবর্ধনা ১৫০ পিস টার্পেন্টাডল সহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার প্রতিবন্ধী ভাতাভোগীদের অর্থ আত্মসাৎকারী চক্রের গ্রেফতার বিষয়ে ঠাকুরগাঁওয়ে সংবাদ সম্মেলন ঠাকুরগাঁওয়ে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় কমিউনিটি পুলিশিং সভা পীরগঞ্জে পেট্রোল পাম্পে ‘নো হেলমেট নো ফুয়েল’ ক্যাম্পিং পীরগঞ্জে স্কুল ছাত্রীকে উত্যক্ত করার দায়ে ইভটিজারের ১৫ দিনের জেল পীরগঞ্জে ভূমিসেবা সপ্তাহ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ও আলোচনা সভা রক্ষক যখন ভক্ষকের ভূমিকায় ঠাকুরগাঁওয়ে পুলিশের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভনে সম্পর্কের পর অস্বীকার, এলাকায় তোলপাড় ঠাকুরগাঁও জেলার শ্রেষ্ঠ নির্বাচিত হয়েছে পীরগঞ্জ থানা

ঠাকুরগাঁওয়ে নদীর বালু উত্তোলনে ভ্রাম্যমাণ আদালতে এক লক্ষ টাকা জরিমানা

আজম রেহমান,সারাদিন ডেস্ক:: ঠাকুরগাঁও শহরের টাঙ্গন নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের অভিযোগে এক সাবেক কাউন্সিলরকে এক লাখ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।
জরিমানার টাকা অনাদায়ে ব্যর্থ হলে তাকে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাভোগ করতে হবে।
ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনাকারী ঠাকুরগাঁওয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সদর ইউএনও আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, পরিবেশ ভারসাম্য রক্ষায় বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইনসহ অন্যান্য আইনে শনিবার সন্ধ্যায় এ দণ্ডাদেশ প্রদান করা হয়।
দণ্ডিত মঈনুল ইসলাম (৫০) শহরের শাহপাড়া এলাকার মৃত মনিরের ছেলে এবং ঠাকুরগাঁও পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর।
ম্যাজিস্ট্রেট মামুন আমাদের প্রতিনিধি কে বলেন, দুপুরে ঠাকুরগাঁও শহরের টাঙ্গন নদী এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এ সময় টাঙ্গন নদীতে অবৈধভাবে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলনকারী সাবেক কাউন্সিলর মঈনুল ইসলামকে আটক করা হয়।
“এরপর তিনি সকলের সামনে দোষ স্বীকার করলে তাকে পরিবেশ ভারসাম্য রক্ষায় বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইনসহ অন্যান্য আইনে এক লাখ টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।”
এ সময় বালু উত্তোলনের সরঞ্জামাদি জব্দ করা হয় বলেও তিনি জানান।
ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার সময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট-এনডিসি তরিকুল ইসলাম, জেলা স্যানেটারি ইন্সপেক্টর আখতার ফারুক, স্যানেটারি ইন্সপেক্টর আশীষ কুমার সাহা, পেশকার সাইফুল ইসলাম, ঠাকুরগাঁও সদর থানা পুলিশ ফোর্স, ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল ও আনসার ব্যাটালিয়নের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
শহরের জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের পাশে গণপূর্ত বিভাগের তত্ত্বাবধানে ঠাকুরগাঁও জেলা রেজিস্ট্রারের কার্যালয়টি নির্মাণের কাজ চলছে। সেখানে জমি ভরাট করতে অনুমতি ছাড়াই নদী থেকে বালু তোলার অভিযোগ ওঠে ঠিকাদারের বিরুদ্ধে।তবে ওই ঠিকাদারের সঙ্গে শনিবার দণ্ডিত সাবেক কাউন্সিলরের কাজের সম্পর্ক নেই।

Tag :

ভিডিও

এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

Azam Rehman

জনপ্রিয় সংবাদ

পীরগঞ্জে মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় কিশোরের মৃত্যু

ঠাকুরগাঁওয়ে নদীর বালু উত্তোলনে ভ্রাম্যমাণ আদালতে এক লক্ষ টাকা জরিমানা

আপডেট টাইম ০৩:১৩:৩৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

আজম রেহমান,সারাদিন ডেস্ক:: ঠাকুরগাঁও শহরের টাঙ্গন নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের অভিযোগে এক সাবেক কাউন্সিলরকে এক লাখ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।
জরিমানার টাকা অনাদায়ে ব্যর্থ হলে তাকে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাভোগ করতে হবে।
ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনাকারী ঠাকুরগাঁওয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সদর ইউএনও আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, পরিবেশ ভারসাম্য রক্ষায় বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইনসহ অন্যান্য আইনে শনিবার সন্ধ্যায় এ দণ্ডাদেশ প্রদান করা হয়।
দণ্ডিত মঈনুল ইসলাম (৫০) শহরের শাহপাড়া এলাকার মৃত মনিরের ছেলে এবং ঠাকুরগাঁও পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর।
ম্যাজিস্ট্রেট মামুন আমাদের প্রতিনিধি কে বলেন, দুপুরে ঠাকুরগাঁও শহরের টাঙ্গন নদী এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এ সময় টাঙ্গন নদীতে অবৈধভাবে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলনকারী সাবেক কাউন্সিলর মঈনুল ইসলামকে আটক করা হয়।
“এরপর তিনি সকলের সামনে দোষ স্বীকার করলে তাকে পরিবেশ ভারসাম্য রক্ষায় বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইনসহ অন্যান্য আইনে এক লাখ টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।”
এ সময় বালু উত্তোলনের সরঞ্জামাদি জব্দ করা হয় বলেও তিনি জানান।
ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার সময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট-এনডিসি তরিকুল ইসলাম, জেলা স্যানেটারি ইন্সপেক্টর আখতার ফারুক, স্যানেটারি ইন্সপেক্টর আশীষ কুমার সাহা, পেশকার সাইফুল ইসলাম, ঠাকুরগাঁও সদর থানা পুলিশ ফোর্স, ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল ও আনসার ব্যাটালিয়নের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
শহরের জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের পাশে গণপূর্ত বিভাগের তত্ত্বাবধানে ঠাকুরগাঁও জেলা রেজিস্ট্রারের কার্যালয়টি নির্মাণের কাজ চলছে। সেখানে জমি ভরাট করতে অনুমতি ছাড়াই নদী থেকে বালু তোলার অভিযোগ ওঠে ঠিকাদারের বিরুদ্ধে।তবে ওই ঠিকাদারের সঙ্গে শনিবার দণ্ডিত সাবেক কাউন্সিলরের কাজের সম্পর্ক নেই।