ঢাকা ১০:১৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
ঠাকুরগাঁও-৩ আসনের সাবেক এমপি শহীদুল্লাহ শহীদ এর জীবনাবসান পীরগঞ্জে মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় কিশোরের মৃত্যু জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি সহ ৫ নেতার পীরগঞ্জে সংবর্ধনা ১৫০ পিস টার্পেন্টাডল সহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার প্রতিবন্ধী ভাতাভোগীদের অর্থ আত্মসাৎকারী চক্রের গ্রেফতার বিষয়ে ঠাকুরগাঁওয়ে সংবাদ সম্মেলন ঠাকুরগাঁওয়ে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় কমিউনিটি পুলিশিং সভা পীরগঞ্জে পেট্রোল পাম্পে ‘নো হেলমেট নো ফুয়েল’ ক্যাম্পিং পীরগঞ্জে স্কুল ছাত্রীকে উত্যক্ত করার দায়ে ইভটিজারের ১৫ দিনের জেল পীরগঞ্জে ভূমিসেবা সপ্তাহ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ও আলোচনা সভা রক্ষক যখন ভক্ষকের ভূমিকায় ঠাকুরগাঁওয়ে পুলিশের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভনে সম্পর্কের পর অস্বীকার, এলাকায় তোলপাড়

খালেদার মুক্তি চেয়ে বিএনপির প্রচারপত্র

সারাদিন ডেস্ক:: জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ঢাকায় প্রচারপত্র বিতরণ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। নয়া পল্টন, ঢাকা, ১ মার্চ। আলমগীর। নয়া পল্টন, ঢাকা, ১ মার্চ। সাজিদ হোসেনজিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ঢাকায় প্রচারপত্র বিতরণ করেছে বিএনপি। দেশের বিভিন্ন স্থানেও প্রচারপত্র বিতরণের খবর পাওয়া গেছে।

এই দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার পাঁচ বছরের কারাদণ্ড হয়েছে। তাঁর ছেলে তারেক রহমানকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ঢাকায় এই কর্মসূচি শুরু করেন দলটির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি এ সময় পথচারী ও রিকশাচালকদের হাতে প্রচারপত্র তুলে দেন। বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আতাউর রহমান ঢালী ও কেন্দ্রীয় কমিটির কয়েকজন নেতা সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

সাড়ে ১০টার দিকে রিজভীসহ কয়েকজন নেতা কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের মূল ফটকের সামনের ফুটপাতে এসে দাঁড়ান। তাঁদের সবার হাতেই প্রচারপত্র ছিল। এ সময় ফুটপাত দিয়ে হেঁটে যাওয়া কয়েকজন পথচারীর হাতে প্রচারপত্র দেন তাঁরা। কয়েকজন রিকশাচালককেও প্রচারপত্র দেওয়া।

এই কর্মসূচির কারণে বিএনপির কার্যালয়ের সামনে আগে থেকে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা ছিল। সাদাপোশাকের পুলিশকেও সেখানে দেখা যায়। অতিরিক্ত পুলিশের উপস্থিতি দেখে প্রচারপত্র বিতরণের জন্য নেতারা আর সড়কে নামেননি। কার্যালয়ের সামনের ফুটপাতে কয়েকজনের হাতে দিয়েই তাঁরা আবার ফটকের গেটের কাছে চলে আসেন।

প্রচারপত্রের শিরোনাম—‘শেখ হাসিনার ১৫ হাজার কোটি টাকার দুর্নীতির মামলা প্রত্যাহার/খারিজ বনাম উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভিত্তিহীন মামলায় বেগম খালেদা জিয়ার কারাদণ্ড’। ওপরে ডান পাশে খালেদা জিয়া ও বাঁ পাশের দলটির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান ও তারেক রহমানের ছবি।

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ঢাকায় প্রচারপত্র বিতরণ করেছেন দলটির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। নয়া পল্টন, ঢাকা, ১ মার্চ। সাজিদ হোসেনবিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ঢাকায় প্রচারপত্র বিতরণ করেছেন দলটির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। নয়া পল্টন, ঢাকা, ১ মার্চ। সাজিদ হোসেনএতে লেখা হয়েছে, ‘কাল্পনিক, সাজানো ও উদ্দেশ্যমূলক মামলায়’ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। অথচ আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে হওয়া ১৫টি মামলার মধ্যে ছয়টি রাজনৈতিক বিবেচনায় প্রত্যাহার এবং অন্য ১৫ হাজার কোটি টাকার নয়টি দুর্নীতি মামলা হাইকোর্টে খারিজ করা হয়েছে।’

প্রচারপত্রে নয় দফা আহ্বান–সংবলিত একটি বার্তাও প্রকাশ করা হয়েছে। এক জায়গায় খালেদা জিয়াকে উদ্ধৃত করা হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, ‘বাংলাদেশের মানুষ দুঃসহ অবস্থা থেকে মুক্তি চায়। আমাকে আপনাদের কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন করার চেষ্টা হলেও বিশ্বাস করবেন—আমি আপনাদের সঙ্গেই আছি। আপনারা গণতন্ত্রের জন্য, অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য, একটা সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য, জনগণের সরকার কায়েমের জন্য ঐক্যবদ্ধভাবে শান্তিপূর্ণ ও নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন চালিয়ে যাবেন। আমি অন্যায়ের কাছে মাথা নত করব না।’

প্রচারপত্র বিতরণের পর রিজভী সাংবাদিকদের বলেন, তাঁদের কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে। বিএনপির চেয়ারপারসনের ওপর কী ধরনের অন্যায় আচরণ করা হয়েছে, তা জনগণকে জানানো হচ্ছে। কেবল সরকারের ক্রোধের কারণে অন্যায়ভাবে খালেদা জিয়াকে জরাজীর্ণ পরিত্যক্ত কারাগারে বন্দী করে রেখেছে। তিনি বলেন, প্রচারপত্র বিতরণের মতো একটি কর্মসূচি পালন করতে হয় শঙ্কা নিয়ে। এই হলো দেশের অবস্থা।

Tag :

ভিডিও

এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

Azam Rehman

জনপ্রিয় সংবাদ

ঠাকুরগাঁও-৩ আসনের সাবেক এমপি শহীদুল্লাহ শহীদ এর জীবনাবসান

খালেদার মুক্তি চেয়ে বিএনপির প্রচারপত্র

আপডেট টাইম ০৪:১৬:৪২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১ মার্চ ২০১৮

সারাদিন ডেস্ক:: জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ঢাকায় প্রচারপত্র বিতরণ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। নয়া পল্টন, ঢাকা, ১ মার্চ। আলমগীর। নয়া পল্টন, ঢাকা, ১ মার্চ। সাজিদ হোসেনজিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ঢাকায় প্রচারপত্র বিতরণ করেছে বিএনপি। দেশের বিভিন্ন স্থানেও প্রচারপত্র বিতরণের খবর পাওয়া গেছে।

এই দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার পাঁচ বছরের কারাদণ্ড হয়েছে। তাঁর ছেলে তারেক রহমানকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ঢাকায় এই কর্মসূচি শুরু করেন দলটির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি এ সময় পথচারী ও রিকশাচালকদের হাতে প্রচারপত্র তুলে দেন। বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আতাউর রহমান ঢালী ও কেন্দ্রীয় কমিটির কয়েকজন নেতা সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

সাড়ে ১০টার দিকে রিজভীসহ কয়েকজন নেতা কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের মূল ফটকের সামনের ফুটপাতে এসে দাঁড়ান। তাঁদের সবার হাতেই প্রচারপত্র ছিল। এ সময় ফুটপাত দিয়ে হেঁটে যাওয়া কয়েকজন পথচারীর হাতে প্রচারপত্র দেন তাঁরা। কয়েকজন রিকশাচালককেও প্রচারপত্র দেওয়া।

এই কর্মসূচির কারণে বিএনপির কার্যালয়ের সামনে আগে থেকে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা ছিল। সাদাপোশাকের পুলিশকেও সেখানে দেখা যায়। অতিরিক্ত পুলিশের উপস্থিতি দেখে প্রচারপত্র বিতরণের জন্য নেতারা আর সড়কে নামেননি। কার্যালয়ের সামনের ফুটপাতে কয়েকজনের হাতে দিয়েই তাঁরা আবার ফটকের গেটের কাছে চলে আসেন।

প্রচারপত্রের শিরোনাম—‘শেখ হাসিনার ১৫ হাজার কোটি টাকার দুর্নীতির মামলা প্রত্যাহার/খারিজ বনাম উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভিত্তিহীন মামলায় বেগম খালেদা জিয়ার কারাদণ্ড’। ওপরে ডান পাশে খালেদা জিয়া ও বাঁ পাশের দলটির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান ও তারেক রহমানের ছবি।

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ঢাকায় প্রচারপত্র বিতরণ করেছেন দলটির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। নয়া পল্টন, ঢাকা, ১ মার্চ। সাজিদ হোসেনবিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ঢাকায় প্রচারপত্র বিতরণ করেছেন দলটির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। নয়া পল্টন, ঢাকা, ১ মার্চ। সাজিদ হোসেনএতে লেখা হয়েছে, ‘কাল্পনিক, সাজানো ও উদ্দেশ্যমূলক মামলায়’ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। অথচ আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে হওয়া ১৫টি মামলার মধ্যে ছয়টি রাজনৈতিক বিবেচনায় প্রত্যাহার এবং অন্য ১৫ হাজার কোটি টাকার নয়টি দুর্নীতি মামলা হাইকোর্টে খারিজ করা হয়েছে।’

প্রচারপত্রে নয় দফা আহ্বান–সংবলিত একটি বার্তাও প্রকাশ করা হয়েছে। এক জায়গায় খালেদা জিয়াকে উদ্ধৃত করা হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, ‘বাংলাদেশের মানুষ দুঃসহ অবস্থা থেকে মুক্তি চায়। আমাকে আপনাদের কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন করার চেষ্টা হলেও বিশ্বাস করবেন—আমি আপনাদের সঙ্গেই আছি। আপনারা গণতন্ত্রের জন্য, অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য, একটা সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য, জনগণের সরকার কায়েমের জন্য ঐক্যবদ্ধভাবে শান্তিপূর্ণ ও নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন চালিয়ে যাবেন। আমি অন্যায়ের কাছে মাথা নত করব না।’

প্রচারপত্র বিতরণের পর রিজভী সাংবাদিকদের বলেন, তাঁদের কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে। বিএনপির চেয়ারপারসনের ওপর কী ধরনের অন্যায় আচরণ করা হয়েছে, তা জনগণকে জানানো হচ্ছে। কেবল সরকারের ক্রোধের কারণে অন্যায়ভাবে খালেদা জিয়াকে জরাজীর্ণ পরিত্যক্ত কারাগারে বন্দী করে রেখেছে। তিনি বলেন, প্রচারপত্র বিতরণের মতো একটি কর্মসূচি পালন করতে হয় শঙ্কা নিয়ে। এই হলো দেশের অবস্থা।