ঢাকা ০৫:৫৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
ঠাকুরগাঁয়ে বিজিবি’র উদ্দোগে আলোচনা ও মতবিনিময় সভা সাংবাদিক বিপ্লবের উপর হামলা মামলার আসামীরা গ্রেপ্তার হচ্ছেনা পীরগঞ্জে শহীদ জমিদার পরিবারের পক্ষে কুরানখানী ও মিলাদমাহফিল চাঞ্চল্যকর আকরাম হত্যা মামলা তদন্তে পুলিশের বানিজ্য-মামলা ভিন্নখাতে প্রবাহের চেষ্টা পীরগঞ্জে নিয়োগ বাণিজ্যের প্রতিবাদে মানববন্ধন হিমালয় সংলগ্ন জেলা ঠাকুরগাঁওয়ে নেই আবহাওয়া অফিস ঠাকুরগাঁওয়ে প্রাইমারীর ভাইভা পরীক্ষা দিতে গিয়ে ২ চাকরীপ্রার্থী আটক সহকারী শিক্ষক নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা দিতে এসে ধরা খেলেন চাকরিপ্রার্থী।  ৪৬৮ এমপি এখনো বহাল সংসদ-সদস্যের সংখ্যা নিয়ে বিতর্ক জীবনে আপনি সত্যিকারের সুখী কি না যেভাবে বুঝবেন

এমপি-মন্ত্রীদের পা চাটা সরকারি অফিসারের কাজ নয় : হাইকোর্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক::এমপি-মন্ত্রীদের পা চাটা সরকারি অফিসারের কাজ নয়, তাদের কাজ রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব পালন করা। নাটোরের গুরুদাসপুরে ‘জয় বাংলা’ স্লোগানের কারণে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষককে বরখাস্তের ঘটনায় এমন মন্তব্য করেছেন হাইকোর্টের এক বিচারপতি।

বুধবার হাইকোর্টের তলবে আদালতে হাজির হন নাটোরের জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ গোলাম নবী। আদালতকে জানান, স্থানীয় এমপির নির্দেশে দরিকাছিকাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মাসুদুর রহমানকে সাময়িক বরখাস্ত করেছেন তিনি।

পরে আদালত ক্ষুব্ধ হয়ে এমন মন্তব্য করেন।

আদালত বলেন, ভুল করলে শুধু এমপি‌ নয় প্রধানমন্ত্রী কিংবা বিচারপতিদেরও সমালোচনা করা যাবে। এতে কারও মানহানি হলে তিনি আদালতের দ্বারস্থ হবেন। পরে বহিষ্কার আদেশ অবিলম্বে প্রত্যাহার করে ৭ই নভেম্বরের মধ্যে আদালতে লিখিত ভাবে তা জানাতে প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে নির্দেশ দেন আদালত।

বুধবার বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের নেতৃত্বাধীন দ্বৈত বেঞ্চ এ আদেশ দেন। এর আগে গেল ২৬ আগস্ট ‘জয় বাংলা শ্লোগান দেয়ায় স্কুল শিক্ষক বরখাস্ত’ শিরোনামে একটি গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হলে তা আদালতের নজরে এনে রিট আবেদন করেন ড. বশির আহমেদ।
Tag :

ভিডিও

এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

Azam Rehman

ঠাকুরগাঁয়ে বিজিবি’র উদ্দোগে আলোচনা ও মতবিনিময় সভা

এমপি-মন্ত্রীদের পা চাটা সরকারি অফিসারের কাজ নয় : হাইকোর্ট

আপডেট টাইম ০২:৪২:১৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২২ অক্টোবর ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক::এমপি-মন্ত্রীদের পা চাটা সরকারি অফিসারের কাজ নয়, তাদের কাজ রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব পালন করা। নাটোরের গুরুদাসপুরে ‘জয় বাংলা’ স্লোগানের কারণে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষককে বরখাস্তের ঘটনায় এমন মন্তব্য করেছেন হাইকোর্টের এক বিচারপতি।

বুধবার হাইকোর্টের তলবে আদালতে হাজির হন নাটোরের জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ গোলাম নবী। আদালতকে জানান, স্থানীয় এমপির নির্দেশে দরিকাছিকাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মাসুদুর রহমানকে সাময়িক বরখাস্ত করেছেন তিনি।

পরে আদালত ক্ষুব্ধ হয়ে এমন মন্তব্য করেন।

আদালত বলেন, ভুল করলে শুধু এমপি‌ নয় প্রধানমন্ত্রী কিংবা বিচারপতিদেরও সমালোচনা করা যাবে। এতে কারও মানহানি হলে তিনি আদালতের দ্বারস্থ হবেন। পরে বহিষ্কার আদেশ অবিলম্বে প্রত্যাহার করে ৭ই নভেম্বরের মধ্যে আদালতে লিখিত ভাবে তা জানাতে প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে নির্দেশ দেন আদালত।

বুধবার বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের নেতৃত্বাধীন দ্বৈত বেঞ্চ এ আদেশ দেন। এর আগে গেল ২৬ আগস্ট ‘জয় বাংলা শ্লোগান দেয়ায় স্কুল শিক্ষক বরখাস্ত’ শিরোনামে একটি গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হলে তা আদালতের নজরে এনে রিট আবেদন করেন ড. বশির আহমেদ।