ঢাকা ০১:২৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পীরগঞ্জে সাংবাদিকের বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা,১২জনের বিরুদ্ধে মামলা- আটক১

পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও)প্রতিনিধি||ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে চাঁদা না দেয়ায় এক সাংবাদিকের বাড়িতে দফায় দফায় সন্ত্রাসী হামলা করায় ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা একজনকে ঘটনা স্থল থেকে আটক করে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।
জানাযায়, ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ পৌর শহরের রঘুনাথপুর মহল্লার বাসিন্দা ঢাকার একটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকার (আজকের পত্রিকা) সাংবাদিক নুরুন নবী রানাকে দীঘদিন ধরে স্থানীয় সঙ্গবদ্ধ সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী চক্রের সদস্যরা চাঁদা দাবী করে আসছিল। চাঁদা না দেওয়ায় শুক্রবার রাত ৮টায় তার বাড়িতে দফায় দফায় সন্ত্রাসী হামলা চালায় এবং ওই সাংবাদিকের পরিবারকে জিম্মি করে ভিতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করে। এক সময় মোবাইল ফোনে বিভিন্ন প্রোপাকান্ড ছড়িয়ে চাঁদা আদায়ের চেষ্ট চালাতে থাকে এবং বাড়ীর সদর দরজা আটকিয়ে পরিবারের সদস্যদের জিম্মি করে রাখে। খবর পেয়ে সহকর্মী সাংবাদিকদের কয়েকজন ও ২ জন ওয়ার্ড কমিশনারের সহযোগিতায় থানার এসআই মিরাজ হোসেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ মামুন নামের একজনকে আটক করে থানায় নেয়। এ ঘটনায় সাংবাদিক নুরুন নবী রানা বাদী হয়ে ১২ জনকে আসামী করে পীরগঞ্জ থানায় একটি সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজির মামলা দায়ের করলে পুলিশ আটক মামুনকে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।
পীরগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুল লতিফ শেখ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এবিষয়ে মামলা হয়েছে। একজনকে আটক করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। অন্যান্যদের বিরুদ্ধেও আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে।

Tag :

ভিডিও

এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

Azam Rehman

জনপ্রিয় সংবাদ

পীরগঞ্জে সাংবাদিকের বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা,১২জনের বিরুদ্ধে মামলা- আটক১

আপডেট টাইম ০৫:২৭:০০ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ নভেম্বর ২০২৩

পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও)প্রতিনিধি||ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে চাঁদা না দেয়ায় এক সাংবাদিকের বাড়িতে দফায় দফায় সন্ত্রাসী হামলা করায় ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা একজনকে ঘটনা স্থল থেকে আটক করে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।
জানাযায়, ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ পৌর শহরের রঘুনাথপুর মহল্লার বাসিন্দা ঢাকার একটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকার (আজকের পত্রিকা) সাংবাদিক নুরুন নবী রানাকে দীঘদিন ধরে স্থানীয় সঙ্গবদ্ধ সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী চক্রের সদস্যরা চাঁদা দাবী করে আসছিল। চাঁদা না দেওয়ায় শুক্রবার রাত ৮টায় তার বাড়িতে দফায় দফায় সন্ত্রাসী হামলা চালায় এবং ওই সাংবাদিকের পরিবারকে জিম্মি করে ভিতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করে। এক সময় মোবাইল ফোনে বিভিন্ন প্রোপাকান্ড ছড়িয়ে চাঁদা আদায়ের চেষ্ট চালাতে থাকে এবং বাড়ীর সদর দরজা আটকিয়ে পরিবারের সদস্যদের জিম্মি করে রাখে। খবর পেয়ে সহকর্মী সাংবাদিকদের কয়েকজন ও ২ জন ওয়ার্ড কমিশনারের সহযোগিতায় থানার এসআই মিরাজ হোসেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ মামুন নামের একজনকে আটক করে থানায় নেয়। এ ঘটনায় সাংবাদিক নুরুন নবী রানা বাদী হয়ে ১২ জনকে আসামী করে পীরগঞ্জ থানায় একটি সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজির মামলা দায়ের করলে পুলিশ আটক মামুনকে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।
পীরগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুল লতিফ শেখ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এবিষয়ে মামলা হয়েছে। একজনকে আটক করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। অন্যান্যদের বিরুদ্ধেও আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে।