ঢাকা ০১:৫৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঠাকুরগাঁওয়ে মহাসচিবের কর্মসূচী স্থলে ১৪৪ ধারা জারী করার প্রতিবাদে বিএনপি’র সংবাদ সম্মেলন

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি::ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রুহিয়া, ভোলার হাট, ঢোলরহাট, রাজাগাঁও, রামনাথে বিএনপি’র মহাসচিবের কর্মী সমাবেশ স্থলে আওয়ামী লীগের পাল্টা কমর্সুচি থাকায় অনিদিষ্টকালের জন্য ১৪৪ ধারা জারী করেছে প্রশাসন।
এর প্রতিবাদে শনিবার দুপুরে ঠাকুরগাঁও বিএনপির নিজস্ব কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন করেন স্থানীয় নেতাকর্মীরা।
এসময় বক্তব্য দেন, জেলা বিএনপির সভাপতি ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান তৈমুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মির্জা ফয়সাল আমিন, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক পয়গাম আলী প্রমূখ।
সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, দীর্ঘ ৪ বছর পর বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এই গণ সমাবেশের কর্মসূচী দিয়েছিলেন। কিন্তু ১৪৪ ধারা জারী করে এই কর্মসূচী বন্ধ করে দিয়েছে পুলিশ প্রশাসন। আমরা আইনের প্রতি আস্থাশীল। তাই আমরা এই মূহুর্তে আইন ভঙ্গ করতে চাইনা। তবে যদি এই নির্বাচনী বছরে আমাদের দলের বা অন্য কোন দলের রাজনৈতিক কর্মকান্ড বন্ধ করে দেয়া হয় তাহলে আমরা সেটা ভঙ্গ করেই জনগণের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করবো এবং আমাদের কর্মকান্ড চালিয়ে যাবো।

Tag :

ভিডিও

এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

Azam Rehman

জনপ্রিয় সংবাদ

ঠাকুরগাঁওয়ে মহাসচিবের কর্মসূচী স্থলে ১৪৪ ধারা জারী করার প্রতিবাদে বিএনপি’র সংবাদ সম্মেলন

আপডেট টাইম ১০:১০:৫৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৭ জানুয়ারী ২০১৮

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি::ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রুহিয়া, ভোলার হাট, ঢোলরহাট, রাজাগাঁও, রামনাথে বিএনপি’র মহাসচিবের কর্মী সমাবেশ স্থলে আওয়ামী লীগের পাল্টা কমর্সুচি থাকায় অনিদিষ্টকালের জন্য ১৪৪ ধারা জারী করেছে প্রশাসন।
এর প্রতিবাদে শনিবার দুপুরে ঠাকুরগাঁও বিএনপির নিজস্ব কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন করেন স্থানীয় নেতাকর্মীরা।
এসময় বক্তব্য দেন, জেলা বিএনপির সভাপতি ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান তৈমুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মির্জা ফয়সাল আমিন, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক পয়গাম আলী প্রমূখ।
সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, দীর্ঘ ৪ বছর পর বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এই গণ সমাবেশের কর্মসূচী দিয়েছিলেন। কিন্তু ১৪৪ ধারা জারী করে এই কর্মসূচী বন্ধ করে দিয়েছে পুলিশ প্রশাসন। আমরা আইনের প্রতি আস্থাশীল। তাই আমরা এই মূহুর্তে আইন ভঙ্গ করতে চাইনা। তবে যদি এই নির্বাচনী বছরে আমাদের দলের বা অন্য কোন দলের রাজনৈতিক কর্মকান্ড বন্ধ করে দেয়া হয় তাহলে আমরা সেটা ভঙ্গ করেই জনগণের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করবো এবং আমাদের কর্মকান্ড চালিয়ে যাবো।