ঢাকা ০৯:১৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
গৃহবধুকে ধর্ষনের পর হত্যা, ২ ঘাতক গ্রেপ্তার ঠাকুরগাঁওয়ে দ্বিতীয় ধাপে দু’টি উপজেলায় নতুন প্রার্থী বিজয়ী ঠাকুরগাঁওয়ে দ্বিতীয় ধাপে দু’টি উপজেলায় নতুন প্রার্থী বিজয়ী উপজেলা নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ায় সুকুমার রায়কে বিএনপি থেকে বহিষ্কার ঠাকুরগাঁও নারকোটিকস এর অভিযানে ভারতীয় টার্পেন্টাডল ট্যাবলেটের চালান ঠাকুরগাঁওয়ে নারকোটিকস’র অভিযানে মাদকের বড় চালান আটক পীরগঞ্জে জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ উপলক্ষে সভা অনুষ্ঠিত পীরগঞ্জে ৩০ পিস টার্পেন্টাডল সহ ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক পীরগঞ্জে ১৫০ গ্রাম শুকনো গাজা সহ ব্যবসায়ী আটক ঠাকুরগাঁওয়ে ঠিকাদারদের নিয়ে এলজিইডি’র দিনব্যাপী কর্মশালা

আতংক নয় , প্রয়োজন সতর্কতা ও সচেতনতা ঠাকুরগাঁওয়ে একই পরিবারের ৫ জনের মৃত্যুর কারণ নিপা ভাইরাস – প্রেস কনফারেন্সে সিভিল সার্জন

আজম রেহমান,সারাদিন ডেস্ক:: ঢাকার রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর) এর ল্যাবরেটরি টেষ্টের ফলাফল অনুযায়ি বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার একই পরিবারের ৫ জনের মৃত্যুর কারণ নিপা ভাইরাস।

আইইডিসিআর এর পরিচালক অধ্যাপক ডাঃ মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা সাক্ষরিত প্রাথমিক তদন্ত প্রতিবেদনের উল্লেখ করে ঠাকুরগাঁও সিভিল সার্জন সভা কক্ষে এক জনাকীর্ণ সাংবাদিক সম্মেলনে সিভিল সার্জন ডাঃ আবু মোঃ খয়রুল কবীর জানান, তদন্ত প্রতিবেদন অনুযায়ি মৃতদের একজন মেহেদি হাসানের নমুনা পরীক্ষা করে নিপা ভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে।

রোগের কারণ অনুসন্ধানে জানা যায়, মৃত ব্যক্তিদের সকলের জ্বর, মাথা ব্যথা, বমি ও মস্তিষ্কে ইনফেকশনের (এনসেফালাইটিস) উপসর্গ ছিল। মৃত ব্যক্তিদের মধ্যে একজনের নমুনা সংগ্রহ করা সম্ভব হয় এবং ওই নমুনায় নিপাহ ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়। বিভিন্ন সময় মৃত ব্যক্তিদের সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের তালিকা তৈরি এবং তাদের স্বাস্থ্যের বর্তমান অবস্থা পর্যবেক্ষণ অব্যাহত রেখেছে আইইডিসিআর।

তাই বিশেষজ্ঞ দলের প্রাথমিক ধারণা নিপা ভাইরাসের মাধ্যমেই দেশজুড়ে এই তোলপাড় করা ২০ দিনের ব্যবধানে এক পরিবারের ৫ জনের মৃত্যু ঘটেছে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে সিভিল সার্জন, শিশু বিশেষজ্ঞ ডাঃ শাহজাহান নেওয়াজ, মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডাঃ তোজাম্মেল হক বলেন, আমাদের ধারণা আক্রমণকারী নিপা ভাইরাসটি পরবর্তীতে দুর্বল হয়ে পড়ায় এ রোগ আর বেশি দূর ছড়িয়ে পড়তে পারেনি।

তবে আরো নিশ্চিত হওয়া ও করণীয় নির্ধারণ ও অধিকতর পরীক্ষার জন্য আজই আইইডিসিআরের আরেকটি উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিদলের ঠাকুরগাঁও এসে পৌঁছানের কথা সিভিল সার্জন জানান। একই সাথে এ ভাইরাস সম্পর্কে আতংক নয় বরং সচেতনতা ও সতর্কতা প্রয়োজন বলে সিভিল সার্জন উল্লেখ করেন। কনফারেন্সে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা ছাড়াও প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

Tag :

ভিডিও

এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

Azam Rehman

গৃহবধুকে ধর্ষনের পর হত্যা, ২ ঘাতক গ্রেপ্তার

আতংক নয় , প্রয়োজন সতর্কতা ও সচেতনতা ঠাকুরগাঁওয়ে একই পরিবারের ৫ জনের মৃত্যুর কারণ নিপা ভাইরাস – প্রেস কনফারেন্সে সিভিল সার্জন

আপডেট টাইম ০৬:৩৩:২৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ মার্চ ২০১৯

আজম রেহমান,সারাদিন ডেস্ক:: ঢাকার রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর) এর ল্যাবরেটরি টেষ্টের ফলাফল অনুযায়ি বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার একই পরিবারের ৫ জনের মৃত্যুর কারণ নিপা ভাইরাস।

আইইডিসিআর এর পরিচালক অধ্যাপক ডাঃ মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা সাক্ষরিত প্রাথমিক তদন্ত প্রতিবেদনের উল্লেখ করে ঠাকুরগাঁও সিভিল সার্জন সভা কক্ষে এক জনাকীর্ণ সাংবাদিক সম্মেলনে সিভিল সার্জন ডাঃ আবু মোঃ খয়রুল কবীর জানান, তদন্ত প্রতিবেদন অনুযায়ি মৃতদের একজন মেহেদি হাসানের নমুনা পরীক্ষা করে নিপা ভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে।

রোগের কারণ অনুসন্ধানে জানা যায়, মৃত ব্যক্তিদের সকলের জ্বর, মাথা ব্যথা, বমি ও মস্তিষ্কে ইনফেকশনের (এনসেফালাইটিস) উপসর্গ ছিল। মৃত ব্যক্তিদের মধ্যে একজনের নমুনা সংগ্রহ করা সম্ভব হয় এবং ওই নমুনায় নিপাহ ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়। বিভিন্ন সময় মৃত ব্যক্তিদের সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের তালিকা তৈরি এবং তাদের স্বাস্থ্যের বর্তমান অবস্থা পর্যবেক্ষণ অব্যাহত রেখেছে আইইডিসিআর।

তাই বিশেষজ্ঞ দলের প্রাথমিক ধারণা নিপা ভাইরাসের মাধ্যমেই দেশজুড়ে এই তোলপাড় করা ২০ দিনের ব্যবধানে এক পরিবারের ৫ জনের মৃত্যু ঘটেছে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে সিভিল সার্জন, শিশু বিশেষজ্ঞ ডাঃ শাহজাহান নেওয়াজ, মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডাঃ তোজাম্মেল হক বলেন, আমাদের ধারণা আক্রমণকারী নিপা ভাইরাসটি পরবর্তীতে দুর্বল হয়ে পড়ায় এ রোগ আর বেশি দূর ছড়িয়ে পড়তে পারেনি।

তবে আরো নিশ্চিত হওয়া ও করণীয় নির্ধারণ ও অধিকতর পরীক্ষার জন্য আজই আইইডিসিআরের আরেকটি উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিদলের ঠাকুরগাঁও এসে পৌঁছানের কথা সিভিল সার্জন জানান। একই সাথে এ ভাইরাস সম্পর্কে আতংক নয় বরং সচেতনতা ও সতর্কতা প্রয়োজন বলে সিভিল সার্জন উল্লেখ করেন। কনফারেন্সে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা ছাড়াও প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।