ঢাকা ১০:২২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
ঠাকুরগাঁয়ে বিজিবি’র উদ্দোগে আলোচনা ও মতবিনিময় সভা সাংবাদিক বিপ্লবের উপর হামলা মামলার আসামীরা গ্রেপ্তার হচ্ছেনা পীরগঞ্জে শহীদ জমিদার পরিবারের পক্ষে কুরানখানী ও মিলাদমাহফিল চাঞ্চল্যকর আকরাম হত্যা মামলা তদন্তে পুলিশের বানিজ্য-মামলা ভিন্নখাতে প্রবাহের চেষ্টা পীরগঞ্জে নিয়োগ বাণিজ্যের প্রতিবাদে মানববন্ধন হিমালয় সংলগ্ন জেলা ঠাকুরগাঁওয়ে নেই আবহাওয়া অফিস ঠাকুরগাঁওয়ে প্রাইমারীর ভাইভা পরীক্ষা দিতে গিয়ে ২ চাকরীপ্রার্থী আটক সহকারী শিক্ষক নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা দিতে এসে ধরা খেলেন চাকরিপ্রার্থী।  ৪৬৮ এমপি এখনো বহাল সংসদ-সদস্যের সংখ্যা নিয়ে বিতর্ক জীবনে আপনি সত্যিকারের সুখী কি না যেভাবে বুঝবেন

বালিয়াডাঙ্গীতে ছবি জোড়া দিয়ে ছাত্রী কে ব্লাকমেইল- মোবাইল কোর্টে ১০ দিনের কারাদণ্ড যুবকের

আজম রেহমান,সারাদিন ডেস্ক::জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার হলদীবাড়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের এক ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করা ও কম্পিউটারে ছবি জোড়া দেওয়ার অপরাধে আব্দুর রহিম(১৮)নামের এক যুবককে ১০ দিনের কারাদণ্ড দিয়েছে মোবাইল কোর্ট।
বুধবার বিকেলে হলদীবাড়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় অফিস কক্ষে বসে এ আদেশ প্রদান করেন মোবাইল কোর্টের বিচারক বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল মান্নান।
জানা গেছে, হলদীবাড়ী গ্রামের ইদ্রিশ আলীর ছেলে আব্দুর রহিম হলদীবাড়ী বাজারে কম্পিটারে গান আপলোডের ব্যবসা করে। সে গোপনে বিভিন্ন মেয়ের ছবি তুলে ছেলেদের ছবির সংগে জোড়া দিয়ে টাকা আয় সহ মেয়েদের যৌন হয়রানীও করতো । গত কয়েকদিন ধরে সে একই এলাকার এক মেধাবী ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করে এবং প্রেমের প্রস্তাব দেয়।এতে রাজি না হওয়ায় গোপনে ছবি তুলে তার ছবির সংগে জোড়া দিয়ে মোবাইলে ছেড়ে দেয়। মেয়ে ও তার পরিবার বিষয়টি জানতে পারলে স্কুলের প্রধান শিক্ষককে জানান। পরে প্রধান শিক্ষক বাবুল হোসেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানকে জানান। উপজেলা নির্বাহী অফিসার স্কুলে গিয়ে উভয় পক্ষের জবান বন্দী গ্রহন করেন। জবান বন্দীতে আব্দুর রহিম তার দোষ স্বীকার করে। আব্দুর রহিম সমিরউদ্দীন স্মৃতি মহাবিদ্যালয়ের এইচ এস সি পরীক্ষার্থী।
হলদীবাড়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাবুল হোসেন জানান,স্কুলের বাইরের পরিবেশ নিরাপদ রাখার জন্য আজকের এ উদ্যোগ।
ভানোর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল ওহাব সরকার বলেন,এলাকার জনগণকে সচেতন করার লক্ষ্যেই এ আয়োজন। স্কুলের মেয়েদের চলাচলে যেন কেউ কোন প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির চেস্টা না করে তাই ভ্রাম্যমান আদালতের এ রায়।
ভারপ্রাপ্ত উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুর রহমান বলেন স্কুল কলেজের মেয়েদের যাওয়া আসার পথ সুগম করা লক্ষ্যে আমরা আইনীসহ সব রকমের সুবিধা দিচ্ছি,যেন কেউ হয়রানীর স্বীকার হয়ে বিদ্যালয় হতে ঝড়ে না পড়ে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার আ.মান্নান বলেন,আব্দুর রহিম তার দোষ স্বীকার করেছে। তার অপরাধ অনুযায়ী দুই বছর সাজা হয়।পারিপাশ্বিকতা চিন্তা করে তার সাজা ১০ দিন করা হয়েছে।
বালিয়াডাঙ্গী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাজেদুল ইসলাম বলেন, মেয়েদের উত্যক্ত করার যে কোনো খবর পেলে পুলিশ তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা নিতে প্রস্তুত।এসময় পুলিশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন ।

Tag :

ভিডিও

এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

Azam Rehman

ঠাকুরগাঁয়ে বিজিবি’র উদ্দোগে আলোচনা ও মতবিনিময় সভা

বালিয়াডাঙ্গীতে ছবি জোড়া দিয়ে ছাত্রী কে ব্লাকমেইল- মোবাইল কোর্টে ১০ দিনের কারাদণ্ড যুবকের

আপডেট টাইম ০১:০৪:৩০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৫ এপ্রিল ২০১৮

আজম রেহমান,সারাদিন ডেস্ক::জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার হলদীবাড়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের এক ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করা ও কম্পিউটারে ছবি জোড়া দেওয়ার অপরাধে আব্দুর রহিম(১৮)নামের এক যুবককে ১০ দিনের কারাদণ্ড দিয়েছে মোবাইল কোর্ট।
বুধবার বিকেলে হলদীবাড়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় অফিস কক্ষে বসে এ আদেশ প্রদান করেন মোবাইল কোর্টের বিচারক বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল মান্নান।
জানা গেছে, হলদীবাড়ী গ্রামের ইদ্রিশ আলীর ছেলে আব্দুর রহিম হলদীবাড়ী বাজারে কম্পিটারে গান আপলোডের ব্যবসা করে। সে গোপনে বিভিন্ন মেয়ের ছবি তুলে ছেলেদের ছবির সংগে জোড়া দিয়ে টাকা আয় সহ মেয়েদের যৌন হয়রানীও করতো । গত কয়েকদিন ধরে সে একই এলাকার এক মেধাবী ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করে এবং প্রেমের প্রস্তাব দেয়।এতে রাজি না হওয়ায় গোপনে ছবি তুলে তার ছবির সংগে জোড়া দিয়ে মোবাইলে ছেড়ে দেয়। মেয়ে ও তার পরিবার বিষয়টি জানতে পারলে স্কুলের প্রধান শিক্ষককে জানান। পরে প্রধান শিক্ষক বাবুল হোসেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানকে জানান। উপজেলা নির্বাহী অফিসার স্কুলে গিয়ে উভয় পক্ষের জবান বন্দী গ্রহন করেন। জবান বন্দীতে আব্দুর রহিম তার দোষ স্বীকার করে। আব্দুর রহিম সমিরউদ্দীন স্মৃতি মহাবিদ্যালয়ের এইচ এস সি পরীক্ষার্থী।
হলদীবাড়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাবুল হোসেন জানান,স্কুলের বাইরের পরিবেশ নিরাপদ রাখার জন্য আজকের এ উদ্যোগ।
ভানোর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল ওহাব সরকার বলেন,এলাকার জনগণকে সচেতন করার লক্ষ্যেই এ আয়োজন। স্কুলের মেয়েদের চলাচলে যেন কেউ কোন প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির চেস্টা না করে তাই ভ্রাম্যমান আদালতের এ রায়।
ভারপ্রাপ্ত উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুর রহমান বলেন স্কুল কলেজের মেয়েদের যাওয়া আসার পথ সুগম করা লক্ষ্যে আমরা আইনীসহ সব রকমের সুবিধা দিচ্ছি,যেন কেউ হয়রানীর স্বীকার হয়ে বিদ্যালয় হতে ঝড়ে না পড়ে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার আ.মান্নান বলেন,আব্দুর রহিম তার দোষ স্বীকার করেছে। তার অপরাধ অনুযায়ী দুই বছর সাজা হয়।পারিপাশ্বিকতা চিন্তা করে তার সাজা ১০ দিন করা হয়েছে।
বালিয়াডাঙ্গী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাজেদুল ইসলাম বলেন, মেয়েদের উত্যক্ত করার যে কোনো খবর পেলে পুলিশ তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা নিতে প্রস্তুত।এসময় পুলিশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন ।