ঢাকা ০৪:৫৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ মে ২০২৪, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গাজীপুরে বাস চাপায় শ্রমিক নিহত, বাসে আগুন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট : গাজীপুরের বাইপাস এলাকায় বাস চাপায় তানিয়া আক্তার (২০) নামের এক নারী শ্রমিক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় দুর্ঘটনা কবলিত বাসে আগুন জ্বালিয়ে দিয়েছে উত্তেজিত শ্রমিকরা। ১৪ জুলাই গাজীপুরের ভোগড়া বাইপাস এলাকার বর্ষা সিনেমা হলের পাশে রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এক ঘন্টা পর রাত ৯টার দিকেও আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের কোন কর্মীকে দেখা যায় নি। নিহত ওই পোষাক শ্রমিক বাইপাস এলাকার ‘ক্যাপিটাল গার্মেন্টস’ নামের একটি পোষাক কারখানায় কাজ করত। উত্তেজিত শ্রমিকরা নতুন সময়কে বলেন, ‘গার্মেন্টসের সামনেই রাস্তা পারাপারের সময় বসুমতি পরিবহণের একটি বাস তাকে চাপা দেয়। পরে সে রাস্তায় পরে গেলে তার উপর দিয়ে বাস উঠিয়ে দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।’ তারা আরো বলেন, ‘প্রথমে বাসটি চাপা দেওয়ার পর তানিয়ে গাড়ীর নিচে পড়ে গেছে। পরে চালাক গাড়ীটি নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে তাকে ঘটনাস্থলেই পিসে মেরে ফেলে।’ এ ঘটনায় উত্তেজিত গার্মেন্টস শ্রমিকরা ওই বাসে আগুন জ্বালিয়ে দেয়। অপরদিকে গাড়ীর চালক ও হেলপার (সহযোগী) পালিয়ে যায় বলেও শ্রমিকরা জানান। এদিকে ঘটনাস্থলে থাকা কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যরা নতুন সময়কে বলেন, ‘আগুন নিয়ন্ত্রণের জন্য ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়া হয়েছে। অপরদিকে দুর্ঘটনায় নিহত নারী শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে।’ সরেজমিনে দেখা যায়, ‘শ্রমিক নিহতের ঘটনায় বাসে আগুন ধরিয়ে দিয়ে শ্রমিকরা বিক্ষোভ করে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে।’ এদিকে বাসে আগুন দেওয়ার ঘটনায় ঢাকা – ময়মনসিংহ মহাসড়কের উভয় পাশে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। ফলে ভোগান্তিতে পরতে হয় সাধারণ জনগণকে।

Tag :

ভিডিও

এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

Azam Rehman

গাজীপুরে বাস চাপায় শ্রমিক নিহত, বাসে আগুন

আপডেট টাইম ০৯:৪৭:১৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৪ জুলাই ২০১৮

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট : গাজীপুরের বাইপাস এলাকায় বাস চাপায় তানিয়া আক্তার (২০) নামের এক নারী শ্রমিক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় দুর্ঘটনা কবলিত বাসে আগুন জ্বালিয়ে দিয়েছে উত্তেজিত শ্রমিকরা। ১৪ জুলাই গাজীপুরের ভোগড়া বাইপাস এলাকার বর্ষা সিনেমা হলের পাশে রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এক ঘন্টা পর রাত ৯টার দিকেও আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের কোন কর্মীকে দেখা যায় নি। নিহত ওই পোষাক শ্রমিক বাইপাস এলাকার ‘ক্যাপিটাল গার্মেন্টস’ নামের একটি পোষাক কারখানায় কাজ করত। উত্তেজিত শ্রমিকরা নতুন সময়কে বলেন, ‘গার্মেন্টসের সামনেই রাস্তা পারাপারের সময় বসুমতি পরিবহণের একটি বাস তাকে চাপা দেয়। পরে সে রাস্তায় পরে গেলে তার উপর দিয়ে বাস উঠিয়ে দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।’ তারা আরো বলেন, ‘প্রথমে বাসটি চাপা দেওয়ার পর তানিয়ে গাড়ীর নিচে পড়ে গেছে। পরে চালাক গাড়ীটি নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে তাকে ঘটনাস্থলেই পিসে মেরে ফেলে।’ এ ঘটনায় উত্তেজিত গার্মেন্টস শ্রমিকরা ওই বাসে আগুন জ্বালিয়ে দেয়। অপরদিকে গাড়ীর চালক ও হেলপার (সহযোগী) পালিয়ে যায় বলেও শ্রমিকরা জানান। এদিকে ঘটনাস্থলে থাকা কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যরা নতুন সময়কে বলেন, ‘আগুন নিয়ন্ত্রণের জন্য ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়া হয়েছে। অপরদিকে দুর্ঘটনায় নিহত নারী শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে।’ সরেজমিনে দেখা যায়, ‘শ্রমিক নিহতের ঘটনায় বাসে আগুন ধরিয়ে দিয়ে শ্রমিকরা বিক্ষোভ করে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে।’ এদিকে বাসে আগুন দেওয়ার ঘটনায় ঢাকা – ময়মনসিংহ মহাসড়কের উভয় পাশে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। ফলে ভোগান্তিতে পরতে হয় সাধারণ জনগণকে।