ঢাকা ১১:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১৩ আশ্বিন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম

বিপর্যয় এলেই ফিনিক্স পাখির মতো জেগে উঠেছে বিএনপি’

বৃহস্পতিবার দুপুরে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার কনিষ্ঠ ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় অনুষ্ঠিত দোয়া মাহফিল পূর্ব এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমি দৃঢ়তার সঙ্গে বলতে চাই, কোনোদিনই তারা (সরকার) সেটা পারবে না। যতবার বিপর্যয় এসেছে ততবার বিএনপি সাধারণ মানুষকে সঙ্গে নিয়ে ফিনিক্স পাখির মতোই জেগে উঠেছে এবং নতুন জীবন লাভ করেছে।’

উইকিপিডিয়ার তথ্য মতে, পৌরাণিক কাহিনী অনুসারে পবিত্র আগুনের স্ফূলিঙ্গ থেকে ফিনিক্স পাখির সৃষ্টি। ফিনিশীয় পুরাণ, চাইনিজ পুরাণ, গ্রিক পুরাণ এবং প্রাচীন মিসরীয়দের বর্ণনায়ও ফিনিক্স পাখির উল্লেখ পাওয়া গেছে। এটি এমনই একটি পবিত্র আগুনের পাখি, যার জীবনচক্র আবর্তিত হয় হাজার বছর ধরে। যমদূত আসার ঠিক আগেই ফিনিক্স পাখি নিজের বাসা নিজেই আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেয়। আর নির্মমভাবে দগ্ধীভূত এই পাখি এবং তার বাসার ভস্ম থেকেই জন্ম নেয় নতুন জীবন। প্রাণ পায় নতুন জীবনের, শুরু হয় আবারও জাতিস্মর ফিনিক্সের অবিনাশী যাত্রা।

দলের নেতাকর্মীদের রাজনীতিকে বুঝে সেই রাজনীতির পক্ষে অত্যন্ত শক্তভাবে অবস্থান নেয়ার পরামর্শ দিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘বাংলাদেশের মানুষের ঘরে ঘরে যেতে হবে, বাংলাদেশের মানুষ বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদীর রাজনীতিকে ধারণ করে। সেজন্যেই বিএনপির প্রতি তাদের এত দুর্বলতা, বিএনপিকে তারা ভালোভাসে। সেই ভালোবাসাকে কাজে লাগিয়ে বিএনপিকে আরো শক্তিশালী করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘দেশপ্রেমিক শক্তিগুলোকে শক্তিশালী করতে হবে এবং গণতন্ত্রের পক্ষের শক্তিগুলোকে শক্তিশালী করে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ভয়াবহ যে দানব গণতন্ত্রকে ধ্বংস করছে, স্বাধীনতাকে বিপন্ন করছে, যারা বাংলাদেশের জনগণের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে তাদেরকে পরাজিত করতে হবে।’

আওয়ামী লীগ এখন গণশত্রুতে পরিণত হয়েছে বলে মন্তব্য করেন ফখরুল। তিনি বলেন, ‘তারা এখন জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। সেজন্য তারা একের পর এক গণবিরোধী কাজগুলো করে চলেছে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা একদিকে আরাফাত রহমান কোকোর রুহের মাগফেরাত কামনা করব, তাকে স্মরণ করব, অন্যদিকে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য অতিদ্রুত সংগঠিত হয়ে তাকে মুক্ত করে নিয়ে আসব ইনশাআল্লাহ। আমাদের নেতা তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে নিয়ে আসব।’

দোয়া মাহফিলে অন্যদের মধ্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এ জেড এম জাহিদ হোসেন, সেলিমা রহমান, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ, যুগ্ম মহাসচিব হারুনুর রশীদ, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী অ্যানি, স্বনির্ভরবিষয়ক সম্পাদক শিরিন সুলতানা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Tag :

ভিডিও

এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

Azam Rehman

জনপ্রিয় সংবাদ

এবার ২৮ প্রতিষ্ঠানের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

বিপর্যয় এলেই ফিনিক্স পাখির মতো জেগে উঠেছে বিএনপি’

আপডেট টাইম ০২:৫১:৩৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০১৯

বৃহস্পতিবার দুপুরে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার কনিষ্ঠ ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় অনুষ্ঠিত দোয়া মাহফিল পূর্ব এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমি দৃঢ়তার সঙ্গে বলতে চাই, কোনোদিনই তারা (সরকার) সেটা পারবে না। যতবার বিপর্যয় এসেছে ততবার বিএনপি সাধারণ মানুষকে সঙ্গে নিয়ে ফিনিক্স পাখির মতোই জেগে উঠেছে এবং নতুন জীবন লাভ করেছে।’

উইকিপিডিয়ার তথ্য মতে, পৌরাণিক কাহিনী অনুসারে পবিত্র আগুনের স্ফূলিঙ্গ থেকে ফিনিক্স পাখির সৃষ্টি। ফিনিশীয় পুরাণ, চাইনিজ পুরাণ, গ্রিক পুরাণ এবং প্রাচীন মিসরীয়দের বর্ণনায়ও ফিনিক্স পাখির উল্লেখ পাওয়া গেছে। এটি এমনই একটি পবিত্র আগুনের পাখি, যার জীবনচক্র আবর্তিত হয় হাজার বছর ধরে। যমদূত আসার ঠিক আগেই ফিনিক্স পাখি নিজের বাসা নিজেই আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেয়। আর নির্মমভাবে দগ্ধীভূত এই পাখি এবং তার বাসার ভস্ম থেকেই জন্ম নেয় নতুন জীবন। প্রাণ পায় নতুন জীবনের, শুরু হয় আবারও জাতিস্মর ফিনিক্সের অবিনাশী যাত্রা।

দলের নেতাকর্মীদের রাজনীতিকে বুঝে সেই রাজনীতির পক্ষে অত্যন্ত শক্তভাবে অবস্থান নেয়ার পরামর্শ দিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘বাংলাদেশের মানুষের ঘরে ঘরে যেতে হবে, বাংলাদেশের মানুষ বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদীর রাজনীতিকে ধারণ করে। সেজন্যেই বিএনপির প্রতি তাদের এত দুর্বলতা, বিএনপিকে তারা ভালোভাসে। সেই ভালোবাসাকে কাজে লাগিয়ে বিএনপিকে আরো শক্তিশালী করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘দেশপ্রেমিক শক্তিগুলোকে শক্তিশালী করতে হবে এবং গণতন্ত্রের পক্ষের শক্তিগুলোকে শক্তিশালী করে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ভয়াবহ যে দানব গণতন্ত্রকে ধ্বংস করছে, স্বাধীনতাকে বিপন্ন করছে, যারা বাংলাদেশের জনগণের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে তাদেরকে পরাজিত করতে হবে।’

আওয়ামী লীগ এখন গণশত্রুতে পরিণত হয়েছে বলে মন্তব্য করেন ফখরুল। তিনি বলেন, ‘তারা এখন জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। সেজন্য তারা একের পর এক গণবিরোধী কাজগুলো করে চলেছে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা একদিকে আরাফাত রহমান কোকোর রুহের মাগফেরাত কামনা করব, তাকে স্মরণ করব, অন্যদিকে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য অতিদ্রুত সংগঠিত হয়ে তাকে মুক্ত করে নিয়ে আসব ইনশাআল্লাহ। আমাদের নেতা তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে নিয়ে আসব।’

দোয়া মাহফিলে অন্যদের মধ্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এ জেড এম জাহিদ হোসেন, সেলিমা রহমান, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ, যুগ্ম মহাসচিব হারুনুর রশীদ, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী অ্যানি, স্বনির্ভরবিষয়ক সম্পাদক শিরিন সুলতানা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।