ঢাকা ০৩:৫৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
গৃহবধুকে ধর্ষনের পর হত্যা, ২ ঘাতক গ্রেপ্তার ঠাকুরগাঁওয়ে দ্বিতীয় ধাপে দু’টি উপজেলায় নতুন প্রার্থী বিজয়ী ঠাকুরগাঁওয়ে দ্বিতীয় ধাপে দু’টি উপজেলায় নতুন প্রার্থী বিজয়ী উপজেলা নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ায় সুকুমার রায়কে বিএনপি থেকে বহিষ্কার ঠাকুরগাঁও নারকোটিকস এর অভিযানে ভারতীয় টার্পেন্টাডল ট্যাবলেটের চালান ঠাকুরগাঁওয়ে নারকোটিকস’র অভিযানে মাদকের বড় চালান আটক পীরগঞ্জে জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ উপলক্ষে সভা অনুষ্ঠিত পীরগঞ্জে ৩০ পিস টার্পেন্টাডল সহ ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক পীরগঞ্জে ১৫০ গ্রাম শুকনো গাজা সহ ব্যবসায়ী আটক ঠাকুরগাঁওয়ে ঠিকাদারদের নিয়ে এলজিইডি’র দিনব্যাপী কর্মশালা

রাজধানীতে এবার ব্র্যাক ব্যাংক কর্মকর্তা নিখোঁজ

আজম রেহমান,সারাদিন ডেস্ক::
এবার রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হয়েছেন ব্র্যাক ব্যাংকের শ্যামলী শাখার জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা নাইমুল ইসলাম সৈকত। মঙ্গলবার সকালে কর্মস্থল শ্যামলী থেকে গুলশানে যাওয়ার উদ্দেশে বের হওয়ার পর থেকে তার খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। এ ঘটনায় গতকাল বুধবার তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে।

তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার ওসি আবদুর রশিদ সমকালকে বলেন, সৈকত কোন জায়গা থেকে নিখোঁজ হন তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে তার সর্বশেষ অবস্থান ছিল নিকেতন এলাকায়। এর পর থেকে তার মোবাইল ফোন বন্ধ রয়েছে। তাকে খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে।

সৈকতের ভগ্নিপতি জামাল উদ্দিন জানান, ব্যাংকের কাজে মঙ্গলবার সকালে শ্যামলী থেকে বের হন সৈকত। এর পর দুপুর সোয়া ১২টার দিকে স্ত্রী তামান্না খান তন্বীর সঙ্গে তার কথা হয়। তখন তিনি গুলশানে যাওয়ার কথা জানান। বিকেল ৪টার দিকে কল করে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। পরের দুই ঘণ্টাতেও তার খোঁজ না পেয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন স্বজনরা। স্বজনরা জানিয়েছেন, সৈকতের গ্রামের বাড়ি বরিশালে। তার বাবার নাম নজরুল ইসলাম। রাজধানীর মিরপুর ২ নম্বর এলাকায় তিনি পরিবার নিয়ে থাকেন। দেড় বছর ধরে তিনি ব্র্যাক ব্যাংকে চাকরি করছেন।

Tag :

ভিডিও

এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

Azam Rehman

গৃহবধুকে ধর্ষনের পর হত্যা, ২ ঘাতক গ্রেপ্তার

রাজধানীতে এবার ব্র্যাক ব্যাংক কর্মকর্তা নিখোঁজ

আপডেট টাইম ০১:২০:০৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০১৭

আজম রেহমান,সারাদিন ডেস্ক::
এবার রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হয়েছেন ব্র্যাক ব্যাংকের শ্যামলী শাখার জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা নাইমুল ইসলাম সৈকত। মঙ্গলবার সকালে কর্মস্থল শ্যামলী থেকে গুলশানে যাওয়ার উদ্দেশে বের হওয়ার পর থেকে তার খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। এ ঘটনায় গতকাল বুধবার তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে।

তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার ওসি আবদুর রশিদ সমকালকে বলেন, সৈকত কোন জায়গা থেকে নিখোঁজ হন তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে তার সর্বশেষ অবস্থান ছিল নিকেতন এলাকায়। এর পর থেকে তার মোবাইল ফোন বন্ধ রয়েছে। তাকে খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে।

সৈকতের ভগ্নিপতি জামাল উদ্দিন জানান, ব্যাংকের কাজে মঙ্গলবার সকালে শ্যামলী থেকে বের হন সৈকত। এর পর দুপুর সোয়া ১২টার দিকে স্ত্রী তামান্না খান তন্বীর সঙ্গে তার কথা হয়। তখন তিনি গুলশানে যাওয়ার কথা জানান। বিকেল ৪টার দিকে কল করে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। পরের দুই ঘণ্টাতেও তার খোঁজ না পেয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন স্বজনরা। স্বজনরা জানিয়েছেন, সৈকতের গ্রামের বাড়ি বরিশালে। তার বাবার নাম নজরুল ইসলাম। রাজধানীর মিরপুর ২ নম্বর এলাকায় তিনি পরিবার নিয়ে থাকেন। দেড় বছর ধরে তিনি ব্র্যাক ব্যাংকে চাকরি করছেন।