ঢাকা ০১:২৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
ঠাকুরগাঁও-৩ আসনের সাবেক এমপি শহীদুল্লাহ শহীদ এর জীবনাবসান পীরগঞ্জে মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় কিশোরের মৃত্যু জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি সহ ৫ নেতার পীরগঞ্জে সংবর্ধনা ১৫০ পিস টার্পেন্টাডল সহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার প্রতিবন্ধী ভাতাভোগীদের অর্থ আত্মসাৎকারী চক্রের গ্রেফতার বিষয়ে ঠাকুরগাঁওয়ে সংবাদ সম্মেলন ঠাকুরগাঁওয়ে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় কমিউনিটি পুলিশিং সভা পীরগঞ্জে পেট্রোল পাম্পে ‘নো হেলমেট নো ফুয়েল’ ক্যাম্পিং পীরগঞ্জে স্কুল ছাত্রীকে উত্যক্ত করার দায়ে ইভটিজারের ১৫ দিনের জেল পীরগঞ্জে ভূমিসেবা সপ্তাহ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ও আলোচনা সভা রক্ষক যখন ভক্ষকের ভূমিকায় ঠাকুরগাঁওয়ে পুলিশের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভনে সম্পর্কের পর অস্বীকার, এলাকায় তোলপাড়

প্রধানমন্ত্রীর ভাষণকে ‘প্রতারণামূলক’ বলছে বিএনপি

প্রতিবেদক::জাতির উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেয়া ভাষণ ‘প্রতারণামূলক’ অভিহিত করে তা প্রত্যাখ্যান করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাষণের পর শুক্রবার (২৫ জানুয়ারি) গণমাধ্যমে পাঠানো এক প্রতিক্রিয়ায় মির্জা ফখরুল এ মন্তব্য করেন।

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শায়রুল কবির খানের পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ফখরুল বলেন, ‘এই নির্বাচনে মানুষের মতামতের প্রতিফলন ঘটেনি এবং তারা (ক্ষমতাসীন) একটা ভয়াবহ রকমের বাংলাদেশের নজিরবিহীন ভোট ডাকাতি করেছে, তা ইতোপূর্বে বাংলাদেশ কখনো দেখেনি।

তিনি বলেন, ‘সেই ভোটের মাধ্যমে তারা আবারও ক্ষমতা দখল করে নিয়েছেন, আবার এসেছেন, এসে তারা দেশ পরিচালনা করবেন এবং বলছেন, বিরোধী দলকে পার্লামেন্টে যাওয়ার জন্য। আমি মনে করি, এটা আরও একটা প্রতারণা জনগণের সঙ্গে করা হচ্ছে, বোকা বানানোর চেষ্টা করা হচ্ছে মানুষকে।’

একাদশ সংসদে যাওয়ার বিষয়ে দলের অবস্থান আবারও পরিষ্কার করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘এই সংসদে তো …। কিভাবে এটাকে সংসদ হিসেবে ধরে নেয়া হবে। আমরা বলেছি, ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেছি। এই মুহূর্তে সংসদ যাওয়ার বা শপথ নেয়ার প্রশ্নই উঠতে পারে না।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমরা বলেছি যে, এ নির্বাচন বাতিল করেন, আবার নতুন নির্বাচন দেন। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিয়ে সুষ্ঠু নির্বাচন করেন, গ্রহণযোগ্য নির্বাচন দেন। সবাই অংশগ্রহণ করবে। তারপরে যে ফলাফল আসবে সেই ফলাফলের ভিত্তিতে সংসদ এবং সরকার গঠন হবে। আমরা তো আগেই বলে দিয়েছি। নতুন করে বলার কিছু নেই।’

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে ব্যাখ্যা দিয়েছেন কেন তার বিজয় হলো? সেই ব্যাখ্যাই প্রমাণ করে যে, তারা আসলে কোনো বিজয় অর্জন করেনি, জনগণের ভোটকে ডাকাতি করে নিয়ে গিয়ে ক্ষমতা দখল করে বসেছেন। তার (প্রধানমন্ত্রী) প্রথম ব্যাখ্যাটা সেটাই প্রমাণ করে।’

তিনি আরও বলেন, ‘কারণ, ইতোপূর্বে আপনার কোনো ব্যাখ্যা দেয়ার প্রয়োজন হয়নি। সঠিক ভোটে জিতলে কোনো ব্যাখ্যা দেয়ার প্রয়োজন হয় না। ইতোমধ্যে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পত্র-পত্রিকা, মিডিয়া এবং বিভিন্ন দেশগুলো বক্তব্যের মধ্যে এসছে যে, এ নির্বাচন কখনোই গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হয়নি এবং এখানে মানুষের মতামতের প্রতিফলন হয়নি। ভয়াবহ রকমের নজিরবিহীন ভোট ডাকাতি করা হয়েছে।’

Tag :

ভিডিও

এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

Azam Rehman

জনপ্রিয় সংবাদ

ঠাকুরগাঁও-৩ আসনের সাবেক এমপি শহীদুল্লাহ শহীদ এর জীবনাবসান

প্রধানমন্ত্রীর ভাষণকে ‘প্রতারণামূলক’ বলছে বিএনপি

আপডেট টাইম ০২:১৩:৫৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ জানুয়ারী ২০১৯

প্রতিবেদক::জাতির উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেয়া ভাষণ ‘প্রতারণামূলক’ অভিহিত করে তা প্রত্যাখ্যান করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাষণের পর শুক্রবার (২৫ জানুয়ারি) গণমাধ্যমে পাঠানো এক প্রতিক্রিয়ায় মির্জা ফখরুল এ মন্তব্য করেন।

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শায়রুল কবির খানের পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ফখরুল বলেন, ‘এই নির্বাচনে মানুষের মতামতের প্রতিফলন ঘটেনি এবং তারা (ক্ষমতাসীন) একটা ভয়াবহ রকমের বাংলাদেশের নজিরবিহীন ভোট ডাকাতি করেছে, তা ইতোপূর্বে বাংলাদেশ কখনো দেখেনি।

তিনি বলেন, ‘সেই ভোটের মাধ্যমে তারা আবারও ক্ষমতা দখল করে নিয়েছেন, আবার এসেছেন, এসে তারা দেশ পরিচালনা করবেন এবং বলছেন, বিরোধী দলকে পার্লামেন্টে যাওয়ার জন্য। আমি মনে করি, এটা আরও একটা প্রতারণা জনগণের সঙ্গে করা হচ্ছে, বোকা বানানোর চেষ্টা করা হচ্ছে মানুষকে।’

একাদশ সংসদে যাওয়ার বিষয়ে দলের অবস্থান আবারও পরিষ্কার করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘এই সংসদে তো …। কিভাবে এটাকে সংসদ হিসেবে ধরে নেয়া হবে। আমরা বলেছি, ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেছি। এই মুহূর্তে সংসদ যাওয়ার বা শপথ নেয়ার প্রশ্নই উঠতে পারে না।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমরা বলেছি যে, এ নির্বাচন বাতিল করেন, আবার নতুন নির্বাচন দেন। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিয়ে সুষ্ঠু নির্বাচন করেন, গ্রহণযোগ্য নির্বাচন দেন। সবাই অংশগ্রহণ করবে। তারপরে যে ফলাফল আসবে সেই ফলাফলের ভিত্তিতে সংসদ এবং সরকার গঠন হবে। আমরা তো আগেই বলে দিয়েছি। নতুন করে বলার কিছু নেই।’

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে ব্যাখ্যা দিয়েছেন কেন তার বিজয় হলো? সেই ব্যাখ্যাই প্রমাণ করে যে, তারা আসলে কোনো বিজয় অর্জন করেনি, জনগণের ভোটকে ডাকাতি করে নিয়ে গিয়ে ক্ষমতা দখল করে বসেছেন। তার (প্রধানমন্ত্রী) প্রথম ব্যাখ্যাটা সেটাই প্রমাণ করে।’

তিনি আরও বলেন, ‘কারণ, ইতোপূর্বে আপনার কোনো ব্যাখ্যা দেয়ার প্রয়োজন হয়নি। সঠিক ভোটে জিতলে কোনো ব্যাখ্যা দেয়ার প্রয়োজন হয় না। ইতোমধ্যে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পত্র-পত্রিকা, মিডিয়া এবং বিভিন্ন দেশগুলো বক্তব্যের মধ্যে এসছে যে, এ নির্বাচন কখনোই গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হয়নি এবং এখানে মানুষের মতামতের প্রতিফলন হয়নি। ভয়াবহ রকমের নজিরবিহীন ভোট ডাকাতি করা হয়েছে।’