ঢাকা ০২:১৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
ঠাকুরগাঁয়ে বিজিবি’র উদ্দোগে আলোচনা ও মতবিনিময় সভা সাংবাদিক বিপ্লবের উপর হামলা মামলার আসামীরা গ্রেপ্তার হচ্ছেনা পীরগঞ্জে শহীদ জমিদার পরিবারের পক্ষে কুরানখানী ও মিলাদমাহফিল চাঞ্চল্যকর আকরাম হত্যা মামলা তদন্তে পুলিশের বানিজ্য-মামলা ভিন্নখাতে প্রবাহের চেষ্টা পীরগঞ্জে নিয়োগ বাণিজ্যের প্রতিবাদে মানববন্ধন হিমালয় সংলগ্ন জেলা ঠাকুরগাঁওয়ে নেই আবহাওয়া অফিস ঠাকুরগাঁওয়ে প্রাইমারীর ভাইভা পরীক্ষা দিতে গিয়ে ২ চাকরীপ্রার্থী আটক সহকারী শিক্ষক নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা দিতে এসে ধরা খেলেন চাকরিপ্রার্থী।  ৪৬৮ এমপি এখনো বহাল সংসদ-সদস্যের সংখ্যা নিয়ে বিতর্ক জীবনে আপনি সত্যিকারের সুখী কি না যেভাবে বুঝবেন

ঠাকুরগাঁওয়ে গণিত বিষয় প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ ব্যাংক কর্মকর্তা ও শিক্ষক আটক

আজম রেহমান|| ঠাকুরগাওয়ের পীরগঞ্জে এসএসসি পরীক্ষার গণিত বিষয় প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। শনিবার সকালে এই বিষয়ে পরীক্ষা শুরুর আগে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রশ্ন ও উত্তরপত্র আদান প্রদানকালে সাইদুর রহমান নামে এক ব্যাংক কর্মকর্তা ও ইউনুস আলী নামে এক শিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ। জবরহাট হেমচন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্রের সচিব গপেন কুমার মালাকার জানান, কেন্দ্রের বাইরে সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে তারা গনিত বিষয়ের প্রশ্ন ও উত্তর পত্র মোবাইল ফোনের মাধ্যমে আদান প্রদান করছিলেন। এসময় থানার এ এস আই আলমগীর বাদশাহ তাদের হাতে নাতে আটক করে। কেন্দ্রের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সোহাগ চন্দ্র সাহা জানান, আটককৃতদের মোবাইল ফোনে পাওয়া প্রশ্নের সাথে পরীক্ষার প্রশ্নের মিল পাওয়া গেছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সাইদুর রহমান উপজেলার বৈরচুনার মোহনপুর গ্রামের হায়দার আলীর পুত্র। সে আল আরাফা ইসলামিক ব্যাংকের কর্মকর্তা এবং ইউনুস আলী দক্ষিন মাধবপুর গ্রামের ইয়াসিন আলীর পুত্র। সে জগন্নাথপুর বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী ও অটিজম বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক বলে জানায় পুলিশ।

Tag :

ভিডিও

এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

Azam Rehman

ঠাকুরগাঁয়ে বিজিবি’র উদ্দোগে আলোচনা ও মতবিনিময় সভা

ঠাকুরগাঁওয়ে গণিত বিষয় প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ ব্যাংক কর্মকর্তা ও শিক্ষক আটক

আপডেট টাইম ০৫:২১:১৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১০ ফেব্রুয়ারী ২০১৮

আজম রেহমান|| ঠাকুরগাওয়ের পীরগঞ্জে এসএসসি পরীক্ষার গণিত বিষয় প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। শনিবার সকালে এই বিষয়ে পরীক্ষা শুরুর আগে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রশ্ন ও উত্তরপত্র আদান প্রদানকালে সাইদুর রহমান নামে এক ব্যাংক কর্মকর্তা ও ইউনুস আলী নামে এক শিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ। জবরহাট হেমচন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্রের সচিব গপেন কুমার মালাকার জানান, কেন্দ্রের বাইরে সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে তারা গনিত বিষয়ের প্রশ্ন ও উত্তর পত্র মোবাইল ফোনের মাধ্যমে আদান প্রদান করছিলেন। এসময় থানার এ এস আই আলমগীর বাদশাহ তাদের হাতে নাতে আটক করে। কেন্দ্রের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সোহাগ চন্দ্র সাহা জানান, আটককৃতদের মোবাইল ফোনে পাওয়া প্রশ্নের সাথে পরীক্ষার প্রশ্নের মিল পাওয়া গেছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সাইদুর রহমান উপজেলার বৈরচুনার মোহনপুর গ্রামের হায়দার আলীর পুত্র। সে আল আরাফা ইসলামিক ব্যাংকের কর্মকর্তা এবং ইউনুস আলী দক্ষিন মাধবপুর গ্রামের ইয়াসিন আলীর পুত্র। সে জগন্নাথপুর বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী ও অটিজম বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক বলে জানায় পুলিশ।