ঢাকা ০৭:৫৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
গৃহবধুকে ধর্ষনের পর হত্যা, ২ ঘাতক গ্রেপ্তার ঠাকুরগাঁওয়ে দ্বিতীয় ধাপে দু’টি উপজেলায় নতুন প্রার্থী বিজয়ী ঠাকুরগাঁওয়ে দ্বিতীয় ধাপে দু’টি উপজেলায় নতুন প্রার্থী বিজয়ী উপজেলা নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ায় সুকুমার রায়কে বিএনপি থেকে বহিষ্কার ঠাকুরগাঁও নারকোটিকস এর অভিযানে ভারতীয় টার্পেন্টাডল ট্যাবলেটের চালান ঠাকুরগাঁওয়ে নারকোটিকস’র অভিযানে মাদকের বড় চালান আটক পীরগঞ্জে জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ উপলক্ষে সভা অনুষ্ঠিত পীরগঞ্জে ৩০ পিস টার্পেন্টাডল সহ ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক পীরগঞ্জে ১৫০ গ্রাম শুকনো গাজা সহ ব্যবসায়ী আটক ঠাকুরগাঁওয়ে ঠিকাদারদের নিয়ে এলজিইডি’র দিনব্যাপী কর্মশালা

৬৫ হাজার টাকায় চুরি যাওয়া মোটরসাইকেল ফেরত:সিন্ডিকেট সদস্যদের হন্যে হয়ে খুজছে পুলিশ

সারাদিন ডেস্ক::জেলার পীরগঞ্জের টিএন্ডটি এলাকায় দোকানের সামনে থেকে চুরি যাওয়া ১টি মোটর সাইকেল ৬৫ হাজার টাকার বিনিময়ে উদ্ধার করে চোরের দলকে গ্রেপ্তারে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।
জানা যায়, গত ৭ নভেম্বর উপজেলার টিএন্ডটি এলাকায় জনৈক ব্যাক্তির দোকানের সামনে থেকে শহরের রঘুনাথপুর মৌজার সমির উদ্দিনের পুত্র আজিজুল ইসলামের ব্যবহৃত ডিসকভার-১৩৫ মোটর সাইকেলটি অজ্ঞাতনামা চোরেরা নিয়ে চম্পট দেয়। বিভিন্ন স্থানে খোজাখুজির এক পর্যায়ে ব্যার্থ হয়ে দিনাজপুরের বিরল উপজেলার উত্তর রঘুনাথপর গ্রামের রানা(২৪) পিতা আবুল কালাম আজাদ ও আব্দুল খালেকের পুত্র মামুনুর রশিদ মামুন(২৫) কে সন্দেহভাজন আসামী করে পীরগঞ্জ থানায় একটি চুরির মামলা করে আজিজুল ইসলাম। যার নং ১৬ তারিখ-১৪.১১.১৮ইং। মামলার কারনে পুলিশের তৎপরতা বৃদ্ধি পলে ১৫ নভেম্বর রাতে চুরি যাওয়া ১ লক্ষ ৮৫ হাজার টাকায় ক্রয়কৃত মোটর সাইকেলটি ফেরত দেয়া হবে মর্মে সিন্ডিকেটের অন্যতম হোতা রঘুনাথপুর মৌজার মামুনুর রশিদ মিন্টু ৬৫ হাজার টাকা দাবী করে আজিজুল ইসলামের কাছে। দাবী অনুযায়ী টাকা দেয়ার কিছুক্ষন পরে ৮ দিন আগে চুরি যাওয়া মোটর সাইকেলটি টিএন্ডটি’র পিছনে মকবুল হোসেনের বাসার গেট থেকে পাওয়া যায়। বিষয়টি জানতে পেরে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা রনি কুমার পাল সঙ্গীয় ফোর্স সহ ঘটনাস্থল থেকে মোটর সাইকেলটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যান এবং চোর সিন্ডিকেটের সদস্যদের পাকড়াও করতে অভিযান পরিচালনা করেন কিন্তু মুহুত্বের মধ্যে চোরের দল উধাও হয়ে যান। আজিজুল ইসলাম বলেন, এই চক্র ইতিপুর্বৈও এভাবে বেশ কয়েকটি মোটর সাইকেল চুরির পর ফেরত দিয়েছে অর্থের বিনিময়ে। কিন্তু থানা পুলিশ এসব বিষয় জেনেও না জানার ভান করেন এবং চোরদের আড়াল করেন। এ ব্যাপারে সাব-ইন্সপেক্টর রনি কুমার পাল বলেন, মামলার ২ এজাহার নামীয় আসামী সহ চোরাই মোটর সাইকেল ফেরত দিয়ে ৬৫ হাজার টাকা গ্রহন কারী ব্যাক্তিকে গ্রেপ্তার করা গেলে এই আন্ত:জেলা চোর সিন্ডিকেটের প্রকৃত সদস্যদের সনাক্তকরণ, রহস্য উম্মোচন করা সম্ভব হবে এবং তিনি চোরদের গ্রেপ্তারে বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা অব্যাহত রেখেছেন। এলাকাবাসী এলাকার আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা ও একের পর এক মোটর সাইকেল চুরির কিনারা করতে পুলিশের ব্যাপক তৎপরতা অব্যাহত রাখার জোর দাবী জানিয়েছেন।

Tag :

ভিডিও

এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

Azam Rehman

গৃহবধুকে ধর্ষনের পর হত্যা, ২ ঘাতক গ্রেপ্তার

৬৫ হাজার টাকায় চুরি যাওয়া মোটরসাইকেল ফেরত:সিন্ডিকেট সদস্যদের হন্যে হয়ে খুজছে পুলিশ

আপডেট টাইম ০৫:৩১:৩১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮

সারাদিন ডেস্ক::জেলার পীরগঞ্জের টিএন্ডটি এলাকায় দোকানের সামনে থেকে চুরি যাওয়া ১টি মোটর সাইকেল ৬৫ হাজার টাকার বিনিময়ে উদ্ধার করে চোরের দলকে গ্রেপ্তারে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।
জানা যায়, গত ৭ নভেম্বর উপজেলার টিএন্ডটি এলাকায় জনৈক ব্যাক্তির দোকানের সামনে থেকে শহরের রঘুনাথপুর মৌজার সমির উদ্দিনের পুত্র আজিজুল ইসলামের ব্যবহৃত ডিসকভার-১৩৫ মোটর সাইকেলটি অজ্ঞাতনামা চোরেরা নিয়ে চম্পট দেয়। বিভিন্ন স্থানে খোজাখুজির এক পর্যায়ে ব্যার্থ হয়ে দিনাজপুরের বিরল উপজেলার উত্তর রঘুনাথপর গ্রামের রানা(২৪) পিতা আবুল কালাম আজাদ ও আব্দুল খালেকের পুত্র মামুনুর রশিদ মামুন(২৫) কে সন্দেহভাজন আসামী করে পীরগঞ্জ থানায় একটি চুরির মামলা করে আজিজুল ইসলাম। যার নং ১৬ তারিখ-১৪.১১.১৮ইং। মামলার কারনে পুলিশের তৎপরতা বৃদ্ধি পলে ১৫ নভেম্বর রাতে চুরি যাওয়া ১ লক্ষ ৮৫ হাজার টাকায় ক্রয়কৃত মোটর সাইকেলটি ফেরত দেয়া হবে মর্মে সিন্ডিকেটের অন্যতম হোতা রঘুনাথপুর মৌজার মামুনুর রশিদ মিন্টু ৬৫ হাজার টাকা দাবী করে আজিজুল ইসলামের কাছে। দাবী অনুযায়ী টাকা দেয়ার কিছুক্ষন পরে ৮ দিন আগে চুরি যাওয়া মোটর সাইকেলটি টিএন্ডটি’র পিছনে মকবুল হোসেনের বাসার গেট থেকে পাওয়া যায়। বিষয়টি জানতে পেরে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা রনি কুমার পাল সঙ্গীয় ফোর্স সহ ঘটনাস্থল থেকে মোটর সাইকেলটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যান এবং চোর সিন্ডিকেটের সদস্যদের পাকড়াও করতে অভিযান পরিচালনা করেন কিন্তু মুহুত্বের মধ্যে চোরের দল উধাও হয়ে যান। আজিজুল ইসলাম বলেন, এই চক্র ইতিপুর্বৈও এভাবে বেশ কয়েকটি মোটর সাইকেল চুরির পর ফেরত দিয়েছে অর্থের বিনিময়ে। কিন্তু থানা পুলিশ এসব বিষয় জেনেও না জানার ভান করেন এবং চোরদের আড়াল করেন। এ ব্যাপারে সাব-ইন্সপেক্টর রনি কুমার পাল বলেন, মামলার ২ এজাহার নামীয় আসামী সহ চোরাই মোটর সাইকেল ফেরত দিয়ে ৬৫ হাজার টাকা গ্রহন কারী ব্যাক্তিকে গ্রেপ্তার করা গেলে এই আন্ত:জেলা চোর সিন্ডিকেটের প্রকৃত সদস্যদের সনাক্তকরণ, রহস্য উম্মোচন করা সম্ভব হবে এবং তিনি চোরদের গ্রেপ্তারে বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা অব্যাহত রেখেছেন। এলাকাবাসী এলাকার আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা ও একের পর এক মোটর সাইকেল চুরির কিনারা করতে পুলিশের ব্যাপক তৎপরতা অব্যাহত রাখার জোর দাবী জানিয়েছেন।