ঢাকা ০৪:০৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩১ মে ২০২৩, ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ঠাকুরগাঁওয়ে কবর খুড়ে লাশের অঙ্গ পতঙ্গ চুরি: আটক ৩

আজম রেহমান,সারাদিন ডেস্ক::
ঠাকুরগাওয়ে এক ব্যাক্তির কবর খুড়ে আঙ্গুল, চোখ সহ কাফনের কাপড় চুরির ঘটনা ঘটেছে। বিক্ষুদ্ধ ধর্মপ্রান মুসলমানরা সন্দেহভাজন ব্যক্তির বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নেয়। পরে এ ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে পুলিশ একই পরিবারের ৩ জনকে আটক করেছে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানাযায়, শহরের হঠাৎপাড়া গ্রামের বাসিন্দা বারেক মিয়া (১০৫) গত শনিবার বার্ধক্যজনিত কারনে ইন্তেকাল করেন। তাকে মুন্সিপাড়া গোরস্থানে দাফন করা হয়। পরিবারের লোকজন ওই বৃদ্ধের লাশ কয়েকদিন পাহারা দেয়। বৃহস্পতিবার ভোরে ওই বৃদ্ধের প্রতিবেশী রিপন কবর খুড়ে লাশের আঙ্গুল, কলিজা, চোখ, কাফনের কাপড়, মাথার চুল চুরি করে নিয়ে আসে। সকালে মৃতের পরিবারের লোকজন কবরটি খোড়া দেখে ভিতরে তাকালে দেখে লাশের অঙ্গগুলো নাই ও তারা সেগুলো খুজতে শুরু করে।
এলাকাবাসির সুত্র ধরে এসব কাজ এর আগেও রিপন নামে একজন করেছিল বলে লাশের পরিবারের লোকজন জানতে পারে। পরে রিপনকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে লোকজনের উপর চড়াও হয়। উত্তেজিত জনতা দুপুর ১২ টার দিকে অভিযুক্ত রিপনের বাড়িতে হামলা চালায়। তারা ওই বাড়িতে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত রিপন (২৫) তার মা লিলি বেগম ও নানী আমেনা বেগমকে আটক করলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আসে। বর্তমানে এলাকায় থমথমে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

ঠাকুরগাও থানার ওসি (তদন্ত) কফিল উদ্দীন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাস্থল থেকে লাশের দুটো আঙ্গুল উদ্ধার করা হয়েছে। রিপনকে প্রাথমিকভাবে জিজ্ঞাসা করলে সে জানায়, কে যে এমনটা করলাম আমি কিছুই জানি না। এখনো কেও অভিযোগ করতে আসে নাই। অভিযোগ পাইলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Tag :

ভিডিও

এই অথরের আরো সংবাদ দেখুন

Azam Rehman

ঠাকুরগাঁওয়ে কবর খুড়ে লাশের অঙ্গ পতঙ্গ চুরি: আটক ৩

আপডেট টাইম ১২:৫৯:৩৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৬ জানুয়ারী ২০১৮

আজম রেহমান,সারাদিন ডেস্ক::
ঠাকুরগাওয়ে এক ব্যাক্তির কবর খুড়ে আঙ্গুল, চোখ সহ কাফনের কাপড় চুরির ঘটনা ঘটেছে। বিক্ষুদ্ধ ধর্মপ্রান মুসলমানরা সন্দেহভাজন ব্যক্তির বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নেয়। পরে এ ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে পুলিশ একই পরিবারের ৩ জনকে আটক করেছে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানাযায়, শহরের হঠাৎপাড়া গ্রামের বাসিন্দা বারেক মিয়া (১০৫) গত শনিবার বার্ধক্যজনিত কারনে ইন্তেকাল করেন। তাকে মুন্সিপাড়া গোরস্থানে দাফন করা হয়। পরিবারের লোকজন ওই বৃদ্ধের লাশ কয়েকদিন পাহারা দেয়। বৃহস্পতিবার ভোরে ওই বৃদ্ধের প্রতিবেশী রিপন কবর খুড়ে লাশের আঙ্গুল, কলিজা, চোখ, কাফনের কাপড়, মাথার চুল চুরি করে নিয়ে আসে। সকালে মৃতের পরিবারের লোকজন কবরটি খোড়া দেখে ভিতরে তাকালে দেখে লাশের অঙ্গগুলো নাই ও তারা সেগুলো খুজতে শুরু করে।
এলাকাবাসির সুত্র ধরে এসব কাজ এর আগেও রিপন নামে একজন করেছিল বলে লাশের পরিবারের লোকজন জানতে পারে। পরে রিপনকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে লোকজনের উপর চড়াও হয়। উত্তেজিত জনতা দুপুর ১২ টার দিকে অভিযুক্ত রিপনের বাড়িতে হামলা চালায়। তারা ওই বাড়িতে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত রিপন (২৫) তার মা লিলি বেগম ও নানী আমেনা বেগমকে আটক করলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আসে। বর্তমানে এলাকায় থমথমে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

ঠাকুরগাও থানার ওসি (তদন্ত) কফিল উদ্দীন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাস্থল থেকে লাশের দুটো আঙ্গুল উদ্ধার করা হয়েছে। রিপনকে প্রাথমিকভাবে জিজ্ঞাসা করলে সে জানায়, কে যে এমনটা করলাম আমি কিছুই জানি না। এখনো কেও অভিযোগ করতে আসে নাই। অভিযোগ পাইলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।